Author Picture

হাইকেল হাশমীর একগুচ্ছ হাইকু

হাইকেল হাশমী

১.
তোমার চোখ তারা
মুখ ছড়ায় চাঁদের আলো
মন আমার আকাশ।

২.
ফুল যখন ফুটে
তোমার হাসি দেখতে পাই
মন অরণ্য আমার।

৩.
চোখে জাগরণ
নেই স্বপ্ন দেখারও ইচ্ছে
শুধুই অপেক্ষা।

৪.
স্বপ্ন ভেঙ্গে যায়
দেখো না আর স্বপ্ন
চোখ তো বেহায়া।

৫.
একটি ঘন বৃক্ষ
শীতল ছায়া তার নিচে
নিজে পুড়ে ছাই।

৬.
পাখী বারান্দায়
এসে বসলো কিছুক্ষণ
ক্ষণস্থায়ী বাসা।

৭.
বৃষ্টির পানি
পুকুরে বুদবুদ নাচে
পর মূহুর্তে নাই।

৮.
শ্বাস আসা যাওয়া
বেঁচে থাকার লক্ষণ
নিঃশব্দতা মরণ।

৯.
জলের উপর মেঘ
আকাশ, মেঘ, জল মিশেছে
প্রকৃতির মাঝে।

১০.
মুখমন্ডল আয়না
বিগত দিনের পদচিহ্ন
আছে যে আঁকা।

১১.
তুমি যখন হাসো
গোলাপি ঠোঁটে তোমার
ফুটে লাল গোলাপ।

১২.
চোখ খুললে তুমি
দেখি সাগরের নীল রঙ
আছে নোনা জল।

১৩.
ঝড়, বৃষ্টি, বাতাস
আমার অন্তরে নিহিত
আমি বাতাবরণ।

১৪.
ফেলে আসা পথ
আমায় ডাকে বারে বার
নেই ফেরার উপায়।

১৫.
সময় অতিত হয়ে যায়
আগামীকে খুঁজে বেড়ায়
বর্তমান মরে যায়।

১৬.
পাতা আর মানব
তারা একই পথের যাত্রী
ঝরে পড়ে যায়ে।

১৭.
প্রেমের যৌক্তিকতা
খুঁজিনি কোন দিন আমি
অযৌক্তিক আমি।

১৮.
ঘুমের আকাশে
রঙ্গীন স্বপ্ন ডানা মেলে
ভোরে স্বপ্নের খুন।

১৯.
সারা রাত স্বপ্ন
ভোর বেলা পাপড়ি তলে
স্বপ্নের পুড়া ছাই।

২০.
জীবন সাদা কালো
চোখ দেখায় রঙ্গীন স্বপ্ন
মাঝে সব ধূসর।

২১.
নিসঙ্গতা তুমি
সারা জীবনের সঙ্গী
প্রিয় পড়সী আমার।

২২.
চোখে বৃষ্টি
মনের মাটিতে খরা
লবনে ভরা।

২৩.
মনের স্পন্দন
কেটে যায় নিঃশ্বাসের তার
জীবন থমকে দাঁড়ায়।

২৪.
জীবন পেয়েছি
নির্মলভাবে বাঁচার জন্য
কাটলো চিন্তায়।

২৫.
ক্ষতবিক্ষত এই মন
কেউ দেখে না এই রক্তক্ষরণ
অদৃশ্য এই মরণ।

২৬.
জীবন রঙ বদলায়
আলো ছায়া নৃত্য করে
আঁধারে হারায়।

২৭.
তোমার স্মৃতির ফুল
ফুটে মনের আঙ্গিনায়
মুহূর্তে ঝরে যায়।

২৮.
মিলন ও বিরহ
একে অপরের সঙ্গী
যেমন দিন রাত্রি।

২৯.
মনের আঁধারে
তোমার ভাবনার জ্যোতি
সুর্যের মত উজ্জ্বল।

৩০.
রং, তুলি, ছবি
আঁকি মনের কাগজে
তোমার আকৃতি।

৩১.
ঘড়ির টিক টিক টিক
জীবন কেটে যাচ্ছে ঠিক
শব্দ নেই সব শেষ।

৩২.
আকাশ ও সমুদ্র
যেমন মিলে দূর প্রান্তে
তুমি সেই বিভ্রম।

৩৩.
স্বপ্নের মাটিতে
তোমার স্মৃতির ঝড় বৃষ্টি
চোখ কিন্তু শুষ্ক।

৩৪.
তোমাকে খুঁজি
দুনিয়ার ভিড়ের মাঝে
তুমি তো অন্তরে।

৩৫.
কতো তাড়াহুড়া
জীবনের পিছে ছোটা
এক বৃত্তে ঘোরা।

আরো পড়তে পারেন

আজাদুর রহমানের একগুচ্ছ কবিতা

সবুজ স্তন প্রচুর নেশা হলে দেখবেন— গাছগুলো বৃষ্টি, পাতার বদলে বব চুল, কী ফর্সা! তার বাহু, উরু ব্যাঞ্জনা, জলভারে নুয়ে আছে সবুজ স্তন। নেশা এমনই এক সদগুন যে, মাঝরাতে উড়ে উঠবে রাস্তাগুলো আকাশে মুখ দিয়ে আপনি বলছেন— আমাদের একটা পৃথিবী ছিল, ঠিক চাঁদের মত গোল। চুর পরিমাণ নেশা হলে, আপনার পা থেকে অহংকারী পাথর খসে….

গাজী গিয়াস উদ্দিনের একগুচ্ছ কবিতা

ক্লান্তির গল্প যারা উপনীত সন্ধ্যে বেলায় ফিরে দেখো দিন মলিন স্বপ্ন – ধূসর জীবন, প্রখর রোদের শায়ক ক্রীড়া প্রাচুর্যে আত্মহারা ছিলে স্বাধীন একদিন, পশ্চিম বেলা চেয়ে চেয়ে আজ শেষ করো ক্লান্তির গল্প।   ছড়ানো বিদ্রুপ সাপের চুমোতে কোথা বিষ হিংস্র নিশ্বাসে তোমার গরল বিশ্বাসে আমাকে পাবে জিয়ল সরল। রুক্ষতা ছেঁটে ফেল – চেহারা কমনীয় সব….

বিপিন বিশ্বাসের একগুচ্ছ কবিতা

শূন্যতায় বাজে প্রণবধ্বনি শূন্যতায় বাজে প্রণবধ্বনি আড়ালে যার মহাজাগতিক রশ্মির চারণভূমি প্রতিবন্ধকতাকে পাশকাটিয়ে নিমগ্ন বিশ্বের স্বরূপ দেখি ধ্যানের স্তরে। মায়ার কায়া ঝেড়ে ফেলে সত্যকে চিনি আপন করে জ্যোতির্ময় জেগে আছে দীপ্ত শিখার আপন জলে । মূল্যবোধের সলতে টাকে মারতে চাই না দিন-দুপুরে অন্ধকারে আলোক রেখা সদাই খোঁজি হৃদ মাঝারে।   জীবনের ধর্ম এই জীবন মা….

error: Content is protected !!