Author Picture

কনীনিকা

জরিনা আখতার

১.
শান্ত পুকুর
স্তব্ধ দুপুর
নির্মেঘ মন
দোলে ঝাউবন।

২.
নেই জাতপাত
ভুলতে বসেছি সব
কাছে কোন পাখি করে কলরব
এখনওতো শেষ হয়নি রাত।

৩.
গায়েতে আকাশ মেখেছে নীল
তার ফাঁকে ফাঁকে কয়েকটি চিল
ডানায় ডানায় রোদের গন্ধ
মৌবনে আজ জেগেছে ছন্দ।

৪.
ভোর হয় হয়
রাত শেষ হবে
সোনামণির কয়
সূর্যি জাগবে কবে ?

৫.
মেঘলা আকাশ
বইছে বাতাস
রৌদ্র দিয়েছে আড়ি
সূর্যের মুখ ভারি।

৬.
মন উড়ু উড়ু
বুক দুরু দুরু
আসবে তো সে আসবে
নাকি শুধুই চোখের জলে মনছবিটা ভাসবে !

৭.
একটি চড়ুই ছাদের কোণে
কিচিরমিচির আপন মনে
দুইটি চড়ুই হলো যখন
ঝগড়া – বিবাদ বাঁধলো তখন।

৮.
অনেক নতুন ছবির মাঝে একটি পুরোনো ছবি
এই ছবিটা কার হবে রে বলতো দেখি কবি
আমরা কি আর বলতে পরি কেউ তো কবি নই
তুই যা বলিস তাই হবে ঠিক তা-ই যেন সই।

৯.
জলের বুকে পাতার নাচন
তাই না দেখে মাছের কাঁপন
মাছরা ভয়ে পালিয়ে বাঁচে
পিয়াস লাগা একটি পাখি জল যে যাঁচে।

১০.
বকুল বেলী জুঁই চামেলি কোথায় সব সই
সারাটা ক্ষণ আমি কেবল তোদের কথাই কই
কোথায় গেলি তোরা সব কোথায় গেলে পাবো
তোদের খোঁজে আমি তবে আরশিনগর যাবো।

আরো পড়তে পারেন

আরণ্যক শামছ-এর একগুচ্ছ কবিতা

প্রান্তিক কবি আমি এক নির্জনে পড়ে থাকা প্রান্তিক কবি। যেন সমাজতাত্ত্বিক সীমারেখার শেষপ্রান্তে ঝুলে থাকা এক পরিত্যাক্ত পলিথিন ব্যাগ। এখানে লুকিয়ে রেখেছি ক্ষুধা, দারিদ্র্য, ভগ্নস্বাস্থ্য, অসাম্য, অশিক্ষা ও মানুষের ছলাকলার ইতিহাস। আমি গাণিতিক ধারণার বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা এক অনস্তিত্বের অপ্রয়োজনীয় সংযুক্তি। তবে জিপসিদের মত আমিও দাঙ্গা বাঁধিয়ে দিতে পারি। আমিও মাটির ঘ্রাণ থেকে জেনে নিতে….

আজাদুর রহমানের একগুচ্ছ কবিতা

সবুজ স্তন প্রচুর নেশা হলে দেখবেন— গাছগুলো বৃষ্টি, পাতার বদলে বব চুল, কী ফর্সা! তার বাহু, উরু ব্যাঞ্জনা, জলভারে নুয়ে আছে সবুজ স্তন। নেশা এমনই এক সদগুন যে, মাঝরাতে উড়ে উঠবে রাস্তাগুলো আকাশে মুখ দিয়ে আপনি বলছেন— আমাদের একটা পৃথিবী ছিল, ঠিক চাঁদের মত গোল। চুর পরিমাণ নেশা হলে, আপনার পা থেকে অহংকারী পাথর খসে….

গাজী গিয়াস উদ্দিনের একগুচ্ছ কবিতা

ক্লান্তির গল্প যারা উপনীত সন্ধ্যে বেলায় ফিরে দেখো দিন মলিন স্বপ্ন – ধূসর জীবন, প্রখর রোদের শায়ক ক্রীড়া প্রাচুর্যে আত্মহারা ছিলে স্বাধীন একদিন, পশ্চিম বেলা চেয়ে চেয়ে আজ শেষ করো ক্লান্তির গল্প।   ছড়ানো বিদ্রুপ সাপের চুমোতে কোথা বিষ হিংস্র নিশ্বাসে তোমার গরল বিশ্বাসে আমাকে পাবে জিয়ল সরল। রুক্ষতা ছেঁটে ফেল – চেহারা কমনীয় সব….

error: Content is protected !!