Author Picture

মইনুল ইসলামের টুকরো কবিতা

মইনুল ইসলাম

বৃষ্টি আর মিষ্টি
~
এই ভেজা ডালটাতে যে পাখিটা এসে বসে
ওর নাম বৃষ্টি,
এই ভেজা চুলে যে মেয়েটি দাড়ায় কাছে এসে
ওর নাম মিষ্টি,
এই বৃষ্টি আর মিষ্টিকে নিয়েই আমার মনে
যতোসব অনাসৃষ্টি।


বয়সকাল
~
আমার যখন বয়স হলো
সেই সাথে তোমারও হলো,
আমি যখন কচি লেবু পাতার ঘ্রানে মাতাল হলাম—
সেই রোগ তোমাকেও ধরলো,
তারপর আমাদের মাঝে কত কি যে হয়ে গেল!


কে জানতো
~
কে জানতো তোমাতে আমাতে এইখানে দেখা হবে?
কে জানতো এই দেখা দিনে দিনে এমন প্রগাঢ় হবে?
কে জানতো একদিন আমি সিগারেটের মত পুড়েঁ পুঁড়ে নিঃশেষ হবো—
তুমি কিঙ্করী সেজে কোন অচেনার ঘরে বাসর সাজাবে?


ভালবাসা
~
সীমা নেই, কোন পরিসীমা নেই
বোঝার সাধ্য নেই কারো,
চেয়ে দেখো ওই আকাশটাকে—
ভালবাসার মাপকাঠি দিয়ে কি তাকে মাপতে পারো?

আরো পড়তে পারেন

মুনিরা মেহেক এর একগুচ্ছ কবিতা

১. আজ এই অন্ধ রাতে জেগে আছে কিছু রাতজাগা ফুল সুবাসে তলিয়ে যাচ্ছে আমার অবিন্যস্ত কফিন রুমালের ভাঁজে মাথা লুকিয়ে আছে এক শহুরে সন্ন্যাস আমার মাথার উপরে স্থির কিছু কুয়াশা ফেটে পড়ছে লোভাতুর ফাঁসির সেই মঞ্চ তোমার সেই শব্দের গলা আজ কোথায় কলমের ভেতর বয়ে যাচ্ছে কালনি নামের এক নদী এখনো অবশিষ্ট আছে অন্ধকার পলাতকের….

আজাদুর রহমানের একগুচ্ছ কবিতা

শোক সংবাদ . যখন দেখবেন অত্যাচারের মত অনবরত কবিতা আসছে, ভিতর থেকে বিড়াল-পায়ে লাফিয়ে লাফিয়ে নামছে ওহীর পর আরেক ওহী! সমানে লিখেও আর কূল পাচ্ছেন না! তখন বুঝবেন, আপনি আপনার কবিতার মধ্যে নিহত হয়েছেন। আর যা আপনি লিখছেন, তা কবিতা নয়, শোক সংবাদ। প্রাকটিস . ব্যথিত হৃদয় নিয়ে কারো কাছে যেওনা, পৃথিবীতে ‘সাহায্য’ বলে কোন….

পান্ডুলিপি থেকে কবিতা

৮১ ~ প্রিয় সত্তা, তুমি হয়ত জানো কবিতা লিখতে হলে কল্পনায় ঝড় তুলতে হয় সৃষ্টি করতে হয় প্রচন্ড শিলা বৃষ্টি ভাবনায় দমকা হাওয়ার তীব্রতা, তখন শব্দ সব উড়ে উড়ে সাদা কাগজে পাখির মতো সারি সারি বসে যায় আশ্রয়ের আশায়, কিন্তু তারা তো চিরকালের জন্য বন্দি হয়ে যায় কবিতার বন্দিশালায় আর তো কোন দিন পায় না….

error: Content is protected !!